শিরোনামঃ

আজ বুধবার / ২রা ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ / শরৎকাল / ১৭ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ / ১৮ই মহর্‌রম ১৪৪৪ হিজরি / এখন সময় সকাল ১১:১১

পাবনায় মিটার রিডার কাম মেসেঞ্জার পদে চাকুরি নিয়মিত করণের দাবিতে কর্মবিরতি ও স্বারকলিপি প্রদান

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি : পাবনা পলøী বিদ্যুৎ সমিতি-১ চাটমোহর (আওতাধীন) বুধবার সকালে কর্মরত মিটার রিডার কাম মেসেঞ্জার চুক্তিভিত্তিক পদে চাকুরি নিয়মিত করণ ও অভিজ্ঞাগতা সম্পর্ণ সনদধারীদের পূর্ণ বহালের দাবিতে কর্মবিরতি পালন করছেন ভুক্তভোগীরা। বাংলাদেশ বিদ্যুতায়ন বোর্ড ও পলøী বিদ্যুৎ সমিতির উধ্ব¯র্Íন কর্মকর্তা হ¯Íÿেপ কামনা করে সমিতির জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মো. মাশফিকুল হাসানের বরাত দিয়ে স্বারকলিপি প্রদান করা হয়।

সমিতির আওতাধীন চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া, ফরিদপুর, ঈশ্বরদী ও পাবনা সদর পূর্নাঙ্গ ও সাব জোনাল অফিসের ১২০ জন মিটার রিডার কাম মেসেঞ্জার কর্মচারিরা কর্মবিরতি অংশ গ্রহণ করেন। এদিকে মাননীয় সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, প্রেসকাব, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পাপবিস-১ সমিতির সভাপতি ও ডিজিএমসহ সকল দফতরে স্বারক লিপি প্রদান করেন ভুক্তভোগীরা।

স্বারকলিপিতে উলেøখ রয়েছে, বাংলাদেশ পলøী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের আওতায় ৮০টি পলøী বিদ্যুৎ সমিতিতে মিটার রিডার কাম মেসেঞ্জার হিসেবে কর্মরত রয়েছে। সরকারের প্রতিশ্রæতি অনুযায়ী ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পেলেও গণহারে চাকুরি থেকে ছাটাই করা হচ্ছে। সবার বয়স ৩৫/৪০ বছরের মধ্যে। ২০/১২/২০১২ ইং তারিখে বাংলাদেশ বিদ্যুতায়ন বোর্ড সভায় চাকুরি ৯ বছর করার পর অভিজ্ঞতার আলোকে অন্য সমিতিতে আবেদনের মাধ্যমে পরীÿা বিহীন ৫৫ বছর পর্যন্ত চাকুরি করার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা তাদের অসৎ উদ্দেশ্যে বোর্ডের সিদ্ধান্ত বরখোলাপ করেছেন। যা সরকারের ডিজিটাল দেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়কে নৎসাত করার নীল নকশা প্রয়ণের চেষ্টা করা হচ্ছে।

আরো বলা হয়েছে, মিটার রিডিং ও বিল বিতরণে একই ব্যক্তিকে দিয়ে করানো হচ্ছে। এতে কাজের পরিমাণ দ্বিগুন করা হয়েছে। যা অনেক কষ্ট দায়ক। এতে গ্রাহক প্রকৃত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ২০১৩ সালে শ্রম আইনে উলেøখ্য রয়েছে, যে কোন স্থায়ী প্রতিষ্ঠানে কাজের জন্য অস্থায়ী কর্মচারি দৈনিক চুক্তি ভিত্তিক কোন শ্রমিক নিয়োগ দেওয়া যাবে না।

সমিতি একটি স্থায়ী প্রতিষ্ঠান হওয়া স্বত্বেও একটি বৃহৎ অংশ চুক্তি ভিত্তিক চাকুরি করছে। পবিসের সদর দপ্তরে কর্মবিরতি পালন করেছে স্থায়ী চাকুরি দাবিতে। প্লেকার্ড প্রদর্শন করা হয় তাতে উলেøখ রয়েছে, চুক্তি থেকে মুক্তি চাই, নিয়মিত চাকুরি চাই। জ্বলছে আলো চলছে দেশ, এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। স্বাধীন দেশের নাগরিক মোরা স্বাধীন ভাবে বাঁচতে চাই। এ কর্মবিরতি অব্যাহত থাকবে বলে আন্দোলনকারীরা জানান।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Share via
Copy link
Powered by Social Snap