শিরোনামঃ

আজ বুধবার / ১১ই বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / গ্রীষ্মকাল / ২৪শে এপ্রিল ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৫ই শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরি / এখন সময় রাত ৯:৩২

সপ্নের দেশ ইতালি যাওয়া হলো না ফেঞ্চুগঞ্জের ৫ যুবকের

ফেঞ্চুগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি : স্বপ্নের দেশ ইউরোপের ইতালীতে যাওয়া হল না ফেঞ্চুগঞ্জের ৫ যুবকের। ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরের তিউসিনিয়া উপকূলে নৌকা ডুবে তারা মারা যান। তাদের সাথে থাকা উপজেলার দিনপুর গ্রামের নানাবাড়ীতে বেড়ে উঠা আরেক যুবকও রয়েছেন। নিহতরা হলেন- ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার মহিদপুর গ্রামের হারুন মিয়ার পুত্র আবদুল আজিজ (২৪), একই গ্রামের মনতু মিয়ার পুত্র আহমদ হোসেন (২৫), সিরাজ উদ্দীনের পুত্র লিটন সিকদার (২৪), ভেলকোনা গ্রামের ওয়ারিজ আলীর পুত্র আয়াজ আহমদ (২৮) ও দিনপুর গ্রামের নানাবাড়ীতে বেড়ে উঠা আফজল মামহমুদ। আফজল ফেঞ্চুগঞ্জের সীমানাবর্তী গোলাপগঞ্জ উপজেলার হাওরতলা গ্রামের মৃত রফিক উদ্দীনের ছেলে।
আজ রোববার (১২/০৫/১৯) সকালে সরেজমিন উপজেলার মুহিদপুর গ্রামের হারুন মিয়া ও মনতু মিয়ার বাড়ীতে গিয়ে দেখা যায় শোকের ছায়া নেমে এসছে। সন্তানের জন্য দোয়া করাচ্ছেন হারুন মিয়া। পরিবারের কারো সাথে কথা বলা যাচ্ছিল না। সবাই যেনো শোকে পাথর হয়ে আছেন। সাংবাদিক পরিচয় জেনে আবদুল আজিজের পিতা হারুন মিয়া জানান, সিলেট মহানগরের জিন্দাবাজার রাজা ম্যানশনের তৃতীয় তলায় ১১৭ নম্বর দোকানে অবস্থিত নিউ এহিয়া ওভারসীজ। এ প্রতিষ্ঠানের মালিক মোঃ এনামুল হকের পাতানো ফাঁধে পড়ে সন্তানদের হারাতে হয়েছে তাদের। তিনি কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, গত ডিসেম্বর (২০১৮) মাসে ভাই বিলাল মিয়া, ছেলে আজিজ, ভাতিজা লিটন ও ভাগনা আহমদ লিবিয়া হয়ে ভূমধ্যসাগর পথে ইউরোপের ইতালীতে যাওয়ার উদ্দশ্যে বাংলাদেশ ত্যাগ করে। ইতালি পৌছে দেওয়ার জন্য এনামুলের সাথে ৭ লাখ টাকার মৌখিক চুক্তিতে আবদ্ধ হন তারা। এ সময় কথা ছিল লিবিয়া থেকে বড় জাহাজে করে ইতালি পৌছে দেয়ার। প্রচন্ড এ গরমে লিবিয়ার মরুভূমিতে ছোট একটি রোমে ৮২ জনকে রেখেছিল এনামুলের দালালচক্র। প্রতিদিন ১২ কেজি চালের খিচড়ি ভাগাভাগি করে খেয়ে ৪ টি মাস মানবেতর জীবন কাটছিল তাদের। আবার কখনো নিজের টাকার বিস্কুট খেয়েও দিনরাত পার করেছেন তারা। সন্তানদের অনাহারের এমন আর্তনাদ শুনে এনামুলের কাছে তাদের ভাই ও সন্তানদের থাকা খাওয়ার জন্য আরো ২০ হাজার টাকা করে দিয়েছেন তবুও মন গলাতে পারেননি পাষন্ড এনামের।
হারুন মিয়া জানান, গত শনিবার বিকেলে ৮ ঘন্টা ভূমধ্যসাগরে সাঁতার কেটে উদ্ধারকারীদের আশ্রয়ে তিউনিশিয়ার আশ্রয়কেন্দ্র থেকে ছোটভাই বিলাল ফোন করে আমাদের বিষয়টি অবহিত করে। বিলাল জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইতালীতে পৌছে দেয়ার উদ্দেশ্যে লিবিয়া থেকে ছোট একটি নৌকায় ৮৬ জনের একটি দল নিয়ে যাত্র শুরু করেন তারা। শুক্রবার সকালে তিউনিসিয়া উপকূলের কাছাকাছি আসলে সমুদ্রের ঢেউয়ের ধাক্কায় তাদের বহনকারি নৌকাটি উল্টে যায়। ৮ ঘন্টা ভূমধ্যসাগরে সাঁতার কেটে উদ্ধারকারীদের আশ্রয়ে তিউনিশিয়ার আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করছেন বিলাল।
নিউ এহিয়া ওভারসীজের মালিক এনামুলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন হারুন মিয়া ও মনতু মিয়া।

গত শনিবার ফেঞ্চুগঞ্জে বিলাল মিয়া তাঁর পরিবারে এ খবর পৌছালে নিহতদের মা-বাবা, আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবসহ পরিচিতজনরা বাকরূদ্ধ হয়ে পড়েন। তাদের এই অকস্মাৎ মৃত্যুর খবর শুনে এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া। আশেপাশের অনেক মানুষ তাদের পরিবারকে সান্তনা দিতে ছুটে আসেন তাদের বাড়িতে। তখন পরিবারের সদস্যদের কান্নায় আকাশ-বাতাস ভারি হয়ে উঠে।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Share via
Copy link
Powered by Social Snap