শিরোনামঃ

আজ শুক্রবার / ১৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ / হেমন্তকাল / ২রা ডিসেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ / ৭ই জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি / এখন সময় সকাল ৭:৫২

বাড়িঘর ছাড়ছে বিলচান্দকবাসী

ফরিদপুর প্রতিনিধি : পাবনার ফরিদপুরের প্রত্যন্ত গ্রাম বিলচান্দকে সপ্তাহখানেক ধরে মারামারি, লুটপাট চালাচ্ছে রহমত মণ্ডল ও আনসার আকন্দ গ্রুপ। লাগাতার সংঘর্ষে আতঙ্কিত হয়ে বাড়িঘর ছাড়ছে বিলচান্দকবাসী।

মণ্ডল ও আকন্দ গ্রুপের সঙ্গে পাবনার সার্কেল এএসপি ফজল-ই-খোদা মীমাংসায় বসলেও কাটছে না জনমনের আতঙ্ক।

১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মণ্ডল-আকন্দ গ্রুপের মারামারি, ভাঙচুর, লুটপাট, নির্যাতনের শিকার হয়ে নিজেদের বসতভিটা ছেড়েছে বিলচান্দকের ৮০ শতাংশ মানুষ। শত শত গ্রামবাসী জীবন বাঁচাতে স্রোতের মত ছুটে চলেছে।

ঘটনার শুরু মাস দুয়েক আগে। আনসার আকন্দ গ্রুপের এনামুল হকের মেয়েকে জোরপূর্বক বিয়ে করেন রহমত মণ্ডল গ্রুপের সাদত আলীর ছেলে আউয়াল হোসেন। এ ঘটনায় এনামুল হকের মামলায় রহমত গ্রুপের লোকজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই ঘটনার জেরেই ১৬ ফেব্রুয়ারি রাতে আকন্দ গ্রুপের আটজনের বাড়ি-ঘর ভাঙচুর, লুটপাট, মারধর করে মণ্ডল গ্রুপ।

এরপর শুরু হয় মামলা-পাল্টা মামলা, লুটপাট-পাল্টা লুটপাট। মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার তা ভয়াবহ আকার ধারণ করে। উভয় গ্রুপের শতাধিক বাড়িতে ভাঙচুর, লুটপাট চালানো হয়। সেই থেকেই প্রাণ হাতে নিয়ে গ্রাম ছাড়ছে হাজারো মানুষ।

বিলচান্দক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নুরুল ইসলাম বাবুল বলেন, দুই নেতা এক হয়ে গ্রামে শান্তি না ফেরালে সবার বাড়িঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়া হবে। এমন গুজব ছড়িয়ে পড়তেই গ্রামের সবাই পালিয়ে যাচ্ছে।

ফরিদপুর থানার ওসি (তদন্ত) হাদিউজ্জামান বলেন, কে বা কারা গুজব রটিয়েছে রাতে গ্রামে আগুন লাগিয়ে দেয়া হবে। তা শুনেই পালাচ্ছে সবাই। আমরা নিরাপত্তার আশ্বাস দেয়ার পরও তারা থামছে না।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Share via
Copy link
Powered by Social Snap