শিরোনামঃ

আজ সোমবার / ২০শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ / হেমন্তকাল / ৫ই ডিসেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ / ১০ই জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি / এখন সময় ভোর ৫:২২

পাবনায় জমিজমা সংক্রান্তে জেরে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে ব্যবসায়ীকে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার : জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জেরে পাবনা সদর উপজেলায় শরিফুল ইসলাম (৩১) নামে একজন ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিবেশী চাচাতো ভাইয়েরা।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে সদরের ভাঁড়ারা ইউনিয়নের ভাঁড়ারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শরিফুল একই গ্রামের সামাদ সরদারের ছেলে ও ইসলামী আন্দোলন ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি কসমেটিক্সের ব্যবসা করতেন।

স্থানীয়রা জানায়, বাড়ির পাশের একটি বাঁশঝাড় নিয়ে পূর্ব থেকেই বিরোধ চলে আসছিল। ওই দিন সকালে শরিফুল সেই বাঁশঝাড়ে একটি বাঁশ কাটতে যায়। এ সময় প্রতবেশী চাচা মজনু সরদারের দুই ছেলে স্বপন ও শাহীন তাকে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে হত্যা করে।

স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে অভিযুক্তরা ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয়রা আরও জানায়, নিহত শরিফুল এলাকায় নম্র-ভদ্র হিসেবে পরিচিত ছিলেন। কারও সঙ্গে কখনো বিরোধে জড়াননি। স্থানীয় শাহী মসজিদের উন্নয়ন কাজের সঙ্গে তিনি জড়িত ছিলেন। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ভাঁড়ারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ বলেন, তাদের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত একটি বিরোধ পূর্ব থেকেই চলে আসছিল। এ নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদেও তারা আসছিল। কিন্তু আদালতে মামলা চলমান থাকায় আমাদের পক্ষ থেকে মীমাংসা করা সম্ভব হয়নি। সকালে বাঁশঝাড়ে গেলে তাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

পাবনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধে এ হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হয়েছে। ধারালো কুড়াল দিয়ে হত্যা করা হয়। হত্যার পর অভিযুক্তরা পালিয়ে গেছে। আমরা ঘটনাস্থলে আছি। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্ত করে পরিবারকে বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

 

About zahangir press

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Share via
Copy link
Powered by Social Snap