শিরোনামঃ

আজ শুক্রবার / ১৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ / হেমন্তকাল / ২রা ডিসেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ / ৭ই জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি / এখন সময় সকাল ৬:৫১

ঢাকার মানুষের দুই লাখ কেজি ওজন কমানোর উদ্যোগ

স্বাধীন খবর ডেস্ক : বর্তমান বিশ্বে স্থূলতা একটি মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত। ছোট থেকে বড় সবাই এখন এই সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বিশ্বের প্রায় ১৯০ কোটি মানুষ অতিরিক্ত ওজনের কারণে নানা সমস্যায় ভুগছেন। যার মধ্যে প্রায় ৬৫ কোটি মানুষ বিভিন্ন মাত্রার স্থূলতায় ভুগছেন। ঢাকা শহরেও এর সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। গতকাল জাতীয় যাদুঘরে কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে ‘স্থূলতা সম্পর্কিত’ একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে এসমব কথা বলেন বক্তারা।

বক্তারা বলেন, ক্রমবর্ধমান এ সমস্যাকে চিহ্নিত করে ডায়েট কাউন্সেলিং সেন্টার জনগণের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। প্রথম পর্যায়ে ২০২০ সালের মধ্যে রাজধানীবাসীর গড় ওজন দুই লাখ কেজি কমানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের সভাপতি অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেন, ৩০ বছর বয়সের আগেই ডায়ববেটিস, হৃদরোগ, উচ্চরক্তচাপের ঝুঁকি ক্রমান্বয়ে বেড়ে যাচ্ছে। এই জটিলতা দূর করার জন্যে এখনই গণসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। স্কুল কলেজের শিক্ষায় সুষম খাবার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। ফাস্টফুডের ক্ষতিকারক দিকগুলো শিশুদের এবং তাদের মা বাবাকে জানতে হবে। তবেই আমরা পরবর্তী প্রজন্মকে সুস্থ রাখতে পারব।

সভাপতির বক্তব্যে পুষ্টিবিদ সৈয়দ শারমিন আক্তার বলেন, স্থুলতা থেকে বিভিন্ন ধরনের নন-কমিনিকেবল রোগগুলো বেশি হচ্ছে। স্থুল ব্যক্তিদের মধ্যে চিন্তাশক্তি, কর্মদক্ষতা কমে যায়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা, বাংলাদেশ ব্রেস্ট ফিডিং ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন অধ্যাপক ডা. এস. কে. রায় এবং পুষ্টি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক শাহীন আহমেদ।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Share via
Copy link
Powered by Social Snap