শিরোনামঃ

আজ মঙ্গলবার / ৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / গ্রীষ্মকাল / ২১শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ / ১৩ই জিলকদ ১৪৪৫ হিজরি / এখন সময় রাত ১১:২১

চিলাহাটি-ঢাকা রুটের ট্রেনের নাম ‘নীলফামারী এক্সপ্রেস’ করার দাবিতে মানববন্ধন

জেলা প্রতিনিধি, নীলফামারী : নীলফামারীর চিলাহাটি থেকে রাজধানী ঢাকা পর্যন্ত দিনের বেলায় আগামী ৪ জুন থেকে চলাচল শুরু করতে যাচ্ছে নতুন একটি আন্তঃনগর ট্রেন। নতুন ট্রেন পেয়ে আনন্দিত হলেও প্রস্তাবিত নাম অনুযায়ী জেলার নামে না হওয়ায় ট্রেনের নাম ‘নীলফামারী এক্সপ্রেস’ ও নীলফামারী স্টেশনের জন্য ৮০ শতাংশ আসন বরাদ্দের দাবিতে মানবন্ধন করেছেন স্থানীয়রা। বুধবার(৩১মে) সকাল ১১ টার দিকে নীলফামারী জেলাবাসীর আয়োজনে শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে নীলফামারী জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী স্মারকলিপি প্রদান করেন তারা। এ সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক মিজানুর রহমান, সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা লাভলী, সংগঠক রাসেল আমিন স্বপন, ছাত্র নেতা মাহমুদ হাসান অয়ন ফয়সাল হোসেন, মাসুদ পারভেজ, কবি সেলিনা সাথী, সাংবাদিক মনজুরুল আলম সিয়াম, মোশারফ হোসেন, ভুবন রায় নিখিল, বিজয় চক্রবর্তী কাজল প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, উত্তরের জেলা কুড়িগ্রাম থেকে ঢাকা রুটে চলাচলকারী ট্রেনের নাম কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস, লালমনিরহাট থেকে ঢাকা রুটে চলাচলকারী ট্রেনের নাম লালমনি একপ্রেস। রংপুর থেকে ঢাকা রুটে চলাচলকারী ট্রেনের নাম রংপুর এক্সপ্রেস, পঞ্চগড় থেকে ঢাকা রুটে চলাচলকারী ট্রেনের নাম পঞ্চগড় এক্সপ্রেস। একই ভাবে চিলাহাটি-ঢাকা-চিলাহাটি রুটে দিবাকালীন আন্তঃনগর ট্রেনের প্রস্তাবিত নাম ‘নীলফামারী এক্সপ্রেস’ রাখা হয়। যখন নতুন ট্রেনের খবর প্রকাশ হয় তখন আমরা খুশি হয়েছি। ‘নীলফামারী এক্সপ্রেস’ নামকরণের ফলে আমরা আরও খুশি হই। কিন্তু গতকাল সে আনন্দ ম্লান হয়েছে। নাম পাল্টে ‘চিলাহাটি এক্সপ্রেস’ করা হয়েছে। আমাদের দাবি, আগের নামটিই বহাল থাকুক।

তারা আরও বলেন, এ অঞ্চলের ৮০ শতাংশ মানুষ নীলফামারীমুখী। তারা নীলফামারী স্টেশন থেকেই ট্রেনে ওঠেন। এখানে ৮০ শতাংশ আসন বরাদ্দ প্রয়োজন। এসময় সিট বরাদ্দ ও নাম পুনর্বহাল না করা হলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দেন বক্তারা।

এ বিষয়ে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক অসীম কুমার তালুকদার বলেন, রেলওয়ে থেকে পাঁচটি নাম প্রস্তাব করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী ‘চিলাহাটি এক্সপ্রেস’ ঠিক করে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, রোববার (২৮ মে) প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে প্রকাশিত একটি নোটিশে নীলফামারীর চিলাহাটি-ঢাকা-চিলাহাটি রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেনের নামকরণ এবং উদ্বোধনের তারিখ ও সময় জানানো হয়। এরপর সোমবার (২৯ মে) রাজশাহী রেলওয়ের মহাপরিচালক বরাবর একটি চিঠিতে ওই ট্রেনের নাম ‘নীলফামারী এক্সপ্রেস’ প্রস্তাবিত উল্লেখ করা হয়। এতে আনন্দে মেতে ওঠে জেলার মানুষ।

তবে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঘরমুখো যাত্রীদের ভ্রমণের সুবিধার্থে মঙ্গলবার (৩০ মে) আট জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ওই কর্মপরিকল্পনায় ঢাকা-চিলাহাটি রুটের নতুন ট্রেনের নাম ‘চিলাহাটি এক্সপ্রেস’ উল্লেখ করা হয়েছে। এজন্য আগের নাম ‘নীলফামারী এক্সপ্রেস’ পুনর্বহালের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন জেলাবাসী।

রোববার (৪ জুন) সকাল ১০টায় গণভবন থেকে নীলফামারীর চিলাহাটি থেকে ঢাকা পর্যন্ত (দিবাকালীন) নতুন আন্তঃনগর ওই ট্রেনের ভার্চুয়ালি উদ্বোধন ও নামকরণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

About zahangir press

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Share via
Copy link
Powered by Social Snap