শিরোনামঃ

আজ শনিবার / ১৪ই মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ / শীতকাল / ২৮শে জানুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ / ৫ই রজব ১৪৪৪ হিজরি / এখন সময় রাত ৪:২০

ইনসাফ সেবা উন্নয়ন বদলে যাবে ভাংনী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান

শরিফা বেগম শিউলী, স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর : “ইনসাফ সেবা উন্নয়ন বদলে যাবে ভাংনী ইউনিয়ন”এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নির্বাচনে জয়ী হলেন মিঠাপুকুর উপজেলার ৪ নং ভাংনী ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মামুন। মিঠাপুকুর উপজেলার ১৭ টি ইউনিয়নে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ৭ই ফেব্রুয়ারী (সোমবার) সারা দেশে ৭ম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারী) উক্ত,নির্বাচনে মিঠাপুকুর উপজেলার ৪ নং ভাংনী ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মামুন ওয়াহেদী বলেন ” ইনসাফ সেবা উন্নয়ন বদলে যাবে ভাংনী ইউনিয়ন “এই স্লোগানকে সামনে রেখে আমি নির্বাচনি মাঠে ছিলাম । জনগণ আমাকে উপর আস্থা রেখে তার মুল্যবান ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করেছেন। আলহামদুলিল্লাহ আমি সবার প্রতি সন্তোষটো। যে সকল সরকারি বরাদ্দগুলো এই ইউনিয়নে আসে সেগুলো আমরা ইনসাফের ভিত্তিতে সকলের মাঝে সমান ভাবে বন্ঠন করে দিবো। জনগণের দাঁড় গোড়ায় গিয়ে সেবা দিবো। জনগণকে আমার কাছে আসতে হবেনা আমি নিজে গিয়ে ইউনিয়নের সবার পাশে দাঁড়াবো। আমাদের ৪ নং ভাংনী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ছিলাম ৭জন। তার মধ্যে সরকারি প্রতীক নৌকা, নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী ঘোড়া ও আমার সতন্ত্র প্রতীক মোটরসাইকেল এই তিনজনের প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। এই ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ছিলো ২৩,০০০/- (তেইশহাজার)। ভোট কাস্ট হয়েছে ১৭,০০০/-(সতেরো হাজার)। নির্বাচনে কোনরকম সহিংসতা হয়নি। সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে জনগণ উৎসব মুখোর পরিবেশে মোটরসাইকেল প্রতীকে ৬০৪১ ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করেছে। আমার নিকটতম প্রতিদন্দি ঘোড়া মার্কা ভোট পেয়েছেন ৫০৩১ (পাঁচ হাজার একত্রিশ)ও নৌকা মার্কা ভোট পেয়েছেন ৩৯০০(উনচল্লিশ শত)। এদিকে আনারস মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান সুমনের বাবা সাংবাদিককে বলেন আমার ছেলে এবার নির্বাচন করেছে। কিন্তু আমি তাকে ভোট দেইনি। আমিসহ আমার পরিবার মোটরসাইকেল মার্কায় ভোট দিয়েছি। কারণ আমি এনার সংগঠনকে ভালোবাসি। এই চেয়ারম্যানের চরিত্র ফুলের মতো পবিত্র। চেয়ারম্যানের ভাই আতাউর রহমান ওয়াহেদী বলেন আমার ভাই কোন টাকা পয়সা দিয়ে ভোট কিনে নাই। আমার ভাই একজন সৎ মানুষ তাই জনগণে ওনার ইলেকশন করেছে, জনগণে ভোট দিয়েছে, জনগণে চেয়ারম্যান বানিয়েছে। ভাংনী ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ আক্তারুজ্জামানসহ অনেকে প্রধান মন্ত্রী ও প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন এবারের নির্বাচন সুষ্ঠ হয়েছে। আমরা উৎসব মুখোর পরিবেশে ভোট দিতে পেরেছি। ভাংনি ইউনিয়নের জনগণ আমরা অনেক খুশী। এবার আমরা মনের মতো একজন চেয়ারম্যান পেয়েছি।

About zahangir press

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Share via
Copy link
Powered by Social Snap